যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধে প্রেস ক্লাবে কর্মশালা
On 22 Mar, 2016 At 01:17 AM | Categorized As Health | With 0 Comments

TBনিজস্ব প্রতিনিধি, আগরতলা, ২১ মার্চ৷৷ সারা বিশ্বের সাথে রাজ্যেও আগামী ২৪ মার্চ বিশ্ব যক্ষ্মা দিবস উদযাপন করা হবে৷ এ বছর বিশ্ব যক্ষ্মা দিবস উদযাপনের ভাবনা সবাই এগিয়ে আসুন যক্ষ্মা রোগ নির্মূল করি এরই অঙ্গ হিসেবে আজ আগরতলা প্রেস ক্লাবে বিশ্ব যক্ষ্মা দিবস ২০১৬ এর উপর সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের নিয়ে এক কর্মশালা আয়োজিত হয়৷ কর্মশালার উদ্বোধন করেন জাতীয় স্বাস্থ্য মিসনের মিশন অধিকর্তা রাভেল হেমেন্দ্র কুমার৷ যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধ এবং এই রোগ নির্মূল করতে জনগণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যেই এই কর্মশালার আয়োজন৷ জাতীয় স্বাস্থ্য মিশন এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তর আয়োজিত এই কর্মশালায় উদ্বোধকের ভাষণে জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনের মিশন অধিকর্তা বলেন, যক্ষ্মা রোগ সম্পর্কে এখনো মানুষের মধ্যে সচেতনতার অভাব রয়েছে৷ এই রোগের ভয়াবহতা সম্পর্কে তিনি বলেন, বিশ্বের মোট যক্ষ্মা রোগীর ২৫ শতাংশ এখনো ভারতে৷ আর ভারত ও চীন মিলিয়ে এই সংখ্যা ৪০ শতাংশ৷ আমাদের দেশে এখনো প্রতি বছর এক হাজার মানুষ যক্ষ্মা রোগে মারা যান৷ স্বাস্থ্যবান মানুষের যক্ষ্মা রোগ হয় না এই ভ্রান্ত ধারণা থেকে বেরিয়ে আসতেও তিনি আহ্বান জানান৷ ধূমপায়ী ও মদ্যপায়ীরাই যে বেশী সংখ্যায় যক্ষ্মা রোগে আক্রান্ত হন সে বিষয় উল্লেক করে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আরও সচেতনতা অবলম্বন করতে হবে৷ এই রোগ প্রতিরোধে তিনি সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর উপরই গুরুত্বরোপ করেন৷ আলোচনায় অংশ নিয়ে ডা, বাবুল দাস যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধ আমাদের করণীয় সম্পর্কে বিস্তৃত আলোচনা করেন৷ দু’ সপ্তাহের বেশী কাশি থাকলে অবশ্যই সরকারী হাসপাতালে কফ পরীক্ষা করতে তিনি পরামর্শ দেন৷ যক্ষ্মা রোগ চিকিৎসার জন্য বর্তমানে রাজ্যে ৫৬টি অত্যাধুনিক ল্যাব রয়েছে বলে তিনি জানান৷  তিনি আরও জানান, জাতীয় স্তরে যেখানে ৮৫ শতাংস যক্ষ্মা রোগী চিকিৎসায় ভাল হন, সেখানে ত্রিপুরার ৯০ শতাংশ এই রোগের চিকিৎসা করে সুস্থ হয়৷ আক্রান্ত রোগী ছয়মাস চিকিৎসা করলে সম্পূর্ণরূপে ভাল হয়ে যান৷ কর্মশালায় জাতীয় স্বাস্থ্য মিশনের স্বাস্থ্য সচিব সুজিত কুমার চাকমা বলেন, যক্ষ্মা রোগ প্রতিরোধের বিষয় জনগণের কাচে নিয়ে যেতে সংবাদ মাধ্যমকে আরও সক্রিয় ভূমিকা নিতে হবে৷ এই রোগ প্রতিরোধ রাজ্য এখন আধুনিক প্রযুক্তিতে পিছিয়ে নেই বলেও তিনি জানান৷ এছাড়া আলোচনা করেন ডা, স্মৃতি শংকর নাথ, স্বাস্থ্য দপ্তরের পি আর ও পারিজাত দত্ত৷ স্বাগত ভাষন দেন আই ই সি সৈকত দে৷ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কিছু প্রশ্ণের উত্তর দেন কর্মশালায় উপস্থিত চিকিৎসকগণ৷

Leave a comment


Powered By JAGARAN – The first daily of Tripura ::: Design & Maintained By CIS SOLUTION