টেট উত্তীর্ণ ফিক্সড পে শিক্ষকদের নিয়মিত বেতনক্রম দিতে সরকারকে নির্দেশ হাইকোর্টের
On 22 Jan, 2019 At 03:34 PM | Categorized As Main Slideshow | With 0 Comments
89 Shares

নিজস্ব প্রতিনিধি, আগরতলা, ২০ জানুয়ারী৷৷ টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ গ্রেজুয়েট এবং পোস্ট গ্রেজুয়েট শিক্ষকদের চাকুরী ক্ষেত্রে সমস্ত ধরণের সুযোগ সুবিধা প্রদান করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট৷ উচ্চ আদালতের প্রধান বিচারপতি সঞ্জয় কারল এবং বিচারপতি সুভাশিষ তলাপাত্রের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই নির্দেশ দিয়েছেন৷ হাইকোর্টের রায় মোতাবেক ওইসব শিক্ষকরা নিয়মিত বেতনক্রম সহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা পাবেন৷ রাজ্য সরকার যাতে ওই শিক্ষকদের নিয়োগের তারিখ থেকে এসব সুযোগ সুবিধা প্রদান করে তার নির্দেশও দিয়েছে হাইকোর্ট৷ মূলত ওই শিক্ষকরা হলেন ১০৩২৩ এডহক শিক্ষকের মধ্যে যারা টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছিলেন৷

প্রসঙ্গত, সত্তরটি পিটিশন আদালতে জমা পড়েছিল৷ যাতে উল্লেখ ছিল যে ১০৩২৩ এডহক শিক্ষকের মধ্যে তারা টেট পরীক্ষা দিয়েছেন এবং সফলতা লাভ করেছিলেন৷ তাদেরকে নিয়মিত বেতনক্রম প্রদান করা হচ্ছিল না৷ তাই তারা বাধ্য হয়ে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছিলেন৷ সোমবার হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, ১০৩২৩ এডহক শিক্ষকের মধ্যে যারা টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবেন তাদেরকে নিয়মিত বেতনক্রম দিতে হবে৷ কিন্তু, দেখা গিয়েছে এতদিন টেট উত্তীর্ণ শিক্ষকদের নিয়োগ করা হচ্ছে ফিক্সড পে টিচার হিসাবে৷ আগালতের নির্দেশে স্পষ্ট উল্লেখ করা হয়, ২০১৫, ২০১৬, ২০১৭ এবং ২০১৮ সালে যেসব শিক্ষকরা টেট উত্তীর্ণ হয়েছেন তাদেরকে যেন আগামী তিন মাসের মধ্যে চাকুরীর সমস্ত সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হয়৷

এখানে উল্লেখ করা যায়, ১০৩২৩ জন শিক্ষকের চাকুরী মামলাটি যখন হাইকোর্টে উঠেছিল এবং তৎকালীন মুখ্য বিচারপতি দীপক গুপ্তা রায়ে এই শিক্ষকদের চাকুরী বাতিল বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন, তখন তাঁর রায়ে উল্লেখ ছিল এই ১০৩২৩ জন শিক্ষকের মধ্যে কেউ যদি টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয় তাহলে তাকে নিয়মিত বেতনক্রম, সিনিয়রিটি সহ সমস্ত সুযোগ সুবিধা দিতে হবে৷ কিন্তু, দেখা গিয়েছে ১০৩২৩ এর মধ্যে যারা টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন তাদেরকে ফিক্সড পে শিক্ষক হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে৷ এরই পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টে পিটিশন দাখিল করা হয়েছিল৷

89 Shares

Leave a comment


Powered By JAGARAN – The first daily of Tripura ::: Design & Maintained By CIS SOLUTION