জিবি হাসপাতালে ভিড় কমাতে চার জেলায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিয়োগে উদ্যোগ স্বাস্থ্য দপ্তরের
On 11 Jul, 2018 At 12:44 PM | Categorized As Main Slideshow | With 0 Comments

নিজস্ব প্রতিনিধি, আগরতলা, ১০ জুলাই৷৷ জেলা হাসপাতাল গুলিকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আপাতত চারটি জেলা হাসপাতালে পাঁচটি বিভাগে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর৷ ধলাই, গোমতী, দক্ষিণ এবং ঊনকোটি জেলায় হাসপাতাল গুলিতে অস্থি রোগ, স্ত্রী রোগ, শিশু রোগ, মেডিসিন এবং এনেস্থেসিয়া বিভাগে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিয়োগ করা হবে৷ পাশাপাশি অপারেশন থিয়েটারের পরিকাঠামোও আরও শক্তিশালী করা হবে৷ কারণ, জিবি হাসপাতালে রোগীদের ভিড় কমানো স্বাস্থ্য দপ্তরের অন্যতম লক্ষ্য হিসেবে স্থির করা হয়েছে৷ স্বাস্থ্য সুদীপ রায় বর্মন জানিয়েছেন, বিভিন্ন জেলা থেকে সাধারণ রোগের চিকিৎসার জন্যও জিবি হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে৷ ফলে, জিবি হাসপাতালের উপর রোগীদের চাপ ক্রমশ বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে৷ আপাতত জেলা হাসপাতাল গুলিকে শক্তিশালী করা গেলেই জিবি হাসপাতালে রোগীদের ভিড় অনেকটাই কমবে বলে আশাবাদী স্বাস্থ্যমন্ত্রী৷

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কথায়, সামান্য জ্বর, সর্দি, কাশি কিংবা এসিডিটির সমস্যা হলেই রোগীরা জিবি হাসপাতালে ছুটে আসেন৷ এমনকি জেলা ও মহকুমা স্তরের হাসপাতালগুলিতেও চিকিৎসকরা সামান্য জটিল রোগ হলেই রোগীদের জিবি হাসপাতালে রেফার করে দেন৷ ফলে, জিবি হাসপাতালে রোগীদের প্রচন্ড ভিড় লক্ষ্য করা যায়৷ অবশ্য এই পরিস্থিতির জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রী স্বীকার করেছেন, জেলা ও মহকুমা হাসপাতাল গুলিতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের যথেষ্ট ঘাটতি রয়েছে৷

বিশেষ করে স্ত্রী রোগ এবং এনেস্থেসিয়া বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের অভাবে জেলা হাসপাতাল গুলিতেই সিজারিয়ান ডেলিভারী সম্ভব হচ্ছে না৷ তাঁর কথায়, কুলাইতে অবস্থিত ধলাই জেলা হাসপাতাল, তেপানিয়ায় গোমতী জেলা হাসপাতাল, শান্তিরবাজারে দক্ষিণ ত্রিপুরা জেলা হাসপাতাল এবং কৈলাসহরে ঊনকোটি জেলা হাসপাতালে অস্থি, এনেস্থেসিয়া, স্ত্রী রোগ, শিশু রোগ এবং মেডিসিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিয়োগ করা হবে৷

তাঁর বক্তব্য, জিবি হাসপাতালে মেডিসিন ওয়ার্ডে জটিল রোগে আক্রান্ত রোগীকেও মাটিতে শুয়ে থাকতে হয়৷ কারণ, রোগীদের প্রচন্ড ভিড়ের কারণে অনেক রোগীকেই শয্যা দেওয়া যাচ্ছে না৷ তাই, মেডিসিন ওয়ার্ডে দুই ভাগে ভাগ করা হবে খুব শীঘ্রই৷ মেডিসিন ওয়ার্ডে আশঙ্কাজনক রোগীদের সহজে চিহ্ণিত করার জন্য পৃথক স্থান নির্নয় করা হবে৷ সেখানেই তাদের চিকিৎসার বন্দোবস্ত করা হবে৷ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কথায়, অনেক সময়ই সাধারণ রোগীদের সাথে আশঙ্কাজনক রোগীদের ভর্তি করা হয়৷ ফলে, চিকিৎসকরা সহজে অনুমান করতে পারেন না কোন রোগীদের চিকিৎসায় বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া উচিত৷ তাই, নতুন এই উদ্যোগ নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে৷

Leave a comment


Powered By JAGARAN – The first daily of Tripura ::: Design & Maintained By CIS SOLUTION